Home » শিল্প সাহিত্য ও সংস্কৃতি সংবাদ » মুজিববর্ষে বিএসপির ২০০তম সাহিত্য সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত

মুজিববর্ষে বিএসপির ২০০তম সাহিত্য সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত

Spread the love

 

মুস্তাফিজুর রহমান : বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ (বিএসপি) যশোরের ২০০তম মাসিক সাহিত্য সভা ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বর্ষ উপলক্ষে কবিতা পাঠ, আলোচনা সভা ও র্পুস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান ৬ মার্চ শুক্রবার সকালে প্রেসক্লাব যশোরে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক মো. সামসুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, যশোর সরকারি এম এম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসার আফসার আলী। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নেতাজী গবেষক, প্রাবন্ধিক, বহুমাত্রিক ডটকমের প্রধান সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম। অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা ড. মুস্তাফিজুর রহমান, ডা. আবুল কালাম আজাদ লিটু. আমিরুল ইসলাম রন্টু, কবি সাজিদ হাসান কামাল।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি প্রফেসর আফসার আলী বলেন, সৃজনশীল সাহিত্য সমাজ বির্নিমাণে দায়িত্বশীল ভুমিকা পালন করে। এ ক্ষেত্রে বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ সেই সৃজনশীল সাহিত্য চর্চার কাজটি করছে। এটা সমাজের ইতিবাচক দিক। যশোরের জন্য খুবই আনন্দের।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা আশরাফুল ইসলাম বলেন, সমকালীন সমাজ বাস্তবতায় মানুষের মনন ও রুচির যে চরম দৈন্যতা নিঃসন্দেহে সাহিত্যের কোমল অঙ্গনকেও প্লাবিত করছে। সেখানে ধারাবাহিকভাবে বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের ২০০তম আসরের আয়োজন অত্যন্ত সাহসী ও দূরদর্শী পদক্ষেপ। আমরা কাঠামোগত উন্নয়নের দিকে যতটা দৃষ্টিপাত করতে পারছি। ততটাই জাতির মনন ও মূল্যবোধ তৈরি করতে আমাদের প্রচেষ্টা অব্যহত থাকবে।

২০০তম সাহিত্য সভার শুরুতে প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না বলেন, ২০০৪ সালে ৬ অক্টোবর শুক্রবার সকাল ১০টায় বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের প্রথম সাহিত্য সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেই থেকে প্রতি ইংরেজি মাসের প্রথম শুক্রবার সকাল ১০টা এ সাহিত্য সভা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এ পর্যন্ত কোন মাস বন্ধ হয়নি। ধারাবাহিক ভাবে আজ ২০০তম সাহিত্য সভা অনুষ্ঠিত হলো। এছাড়া প্রতি সাহিত্য সভায় পঠিত ও আলোচিত কবিতা নিয়ে প্রকাশিত হচ্ছে একুশের পত্র। সেটিও কোনদিন বন্ধ হয়নি। আর এজন্য সংগঠনের সকল সদস্যদের তিনি ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সদস্যদের আন্তরিকতার কারণে এটা সম্ভব হয়েছে।

২০০তম সাহিত্য সভায় স্মৃতিচারণে অংশ নেন, প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পদ্মনাভ অধিকারী, কাজী রকিবুল ইসলাম, বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালেক, অধ্যাপক সুরাইয়া শরীফ, রাশিদা আখতার লিলি, নূরজাহান আরা নীতি, শাহরিয়ার সোহেল, আহমেদ মাহাবুব ফারুক, আবুল হাসান তুহিন, আরশি গাইন, রেজাউল করিম রোমেল, শরীফ উদ্দিন।

এছাড়া কবিতা পাঠ ও আলোচনায় অংশ নেন, আহমদ রাজু, অ্যাড, মাহমুদা খানম, শরিফুল আলম,  হোসেন আলী, মোস্তানূর রহমান সাক্ষর, লায়লা বেগম, সালমা খাতুন, রাজপথিক, অধ্যাপক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, মহব্বত আলী মন্টু, সাধন কুমার দাস, শংকর নিভানন, সাধন কুমার অধিকারী, গোবিন্দ চন্দ্র বিশ^াস, মো, ইলিয়াস শাহ, ফাতিমা পারভীন, শামীম বাদল, আব্দুল আলীম, সানজিদা ফেরদৌস, হুমায়ন কবির, উত্তম কুমার, নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে পঠিত কবিতার মধ্যে গোবিন্দ চন্দ্র বিশ্বাস, পদ্মনাভ অধিকারী, রাজপথিক, সর্বাধিক একুশের পত সংগ্রহের জন্য প্রফেসর জাহাঙ্গীর আলম, রাশিদা আখতার লিলি, ইলিয়াস শাহ, সর্বাধিক উপস্থিতির জন্য পদ্মনাভ অধিকারীকে পুরস্কার প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে মিডিয়া পার্টনার ছিলো বহুমাত্রিক ডটকম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*